সড়কের এলাইনমেন্টের মৌলিক নীতিমালা

0
11

সড়কের এলাইনমেন্ট চিহ্নিতকরণে নিম্নোক্ত মৌলিক নীতিমালা অনুসরণীয়-

(ক) দেশের আধুনিক পরিকল্পনার সাথে প্রস্তাবিত সড়কের এলাইনমেন্ট সঙ্গতিপূর্ণ হতে হবে।

(খ) যেহেতু সড়কের দৈর্ঘ্য কম হলে নির্মাণ, রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিচালনা খরচ কম হয় এবং ভ্রমণে সময়ও কম লাগে। তাই দু প্রান্তীয় ষ্টেশনের মধ্যবর্তী অংশে সড়ক সােজা হওয়া উচিৎ তবে সড়ক এলাইনমেন্ট চিহ্নিতকরণে গুরুত্বপূর্ণ স্থানসমূহ পরিহার করা যাবে না।

(গ) প্রস্তাবিত সড়ক অবশ্যই যােগাযােগের মাধ্যম হিসেবে সাশ্রয়ী হতে হবে। এ উদ্দেশ্যে সড়কের এলাইনমেন্ট

নির্ধারণে সহজ ঢাল, বৃহৎ ব্যাসের অনুভূমিক বাক, পর্যাপ্ত দৃশ্যমান দূরত্ব, সড়কের জন্য উপযােগী মৃত্তিকা ও নিষ্কাশন ব্যবস্থা ইত্যাদি বিষয়ের প্রতি বিশেষ লক্ষ্য রাখতে হবে। যে সড়কের নির্মাণ, রক্ষণাবেক্ষণ, যানবাহন

চলাচলে খরচ কম হয়, সড়কের ঐ এলাইনমেন্টই অর্থনৈতিক দৃষ্টিতে সাশ্রয়ী।

(ঘ) সড়কের এলাইনমেন্ট এমন হওয়া উচিৎ যেন সড়ক নির্মাণ সহজ হয়, নিরাপদে যানবাহন চলাচল করতে পারে, ঢাল সহজ হয়, পর্যাপ্ত দৃশ্যমান দূরত্ব পাওয়া যায়, বৃহৎ ব্যাসে অনুভূমিক বাক দেয়ার উপযােগীয় হয়, স্রোতস্বিণী খাল ইত্যাদিতে নির্মিত ব্রীজ-কালভার্ট, খাল, স্রোতস্বিণী ইত্যাদিকে লম্বভাবে অতিক্রম করে।

(ঙ) সড়কের এলাইনমেন্ট এলাকার সৌন্দর্যতম ও চিত্তাকর্ষক স্থানের সাথে সম্পর্কিত অবস্থানে নির্ধারণ করা উচিৎ।

সড়কের এলাইনমেন্ট নির্বাচনেয়ন্ত্রণকারী বিষয়সমূহ (Factors that controls the selection of alignment of road)-

নিম্নোক্ত বিষয়গুলি কোন সড়কের এলাইনমেন্ট নির্বাচনে নিয়ন্ত্রকের ভূমিকা পালন করে থাকে-

১।সড়কটি কী ধরনের এবং কত সংখ্যক যানবাহন চলাচল করার জন্য নির্মাণ করা হবে।

২। সড়কটি কোন কোন গুরুত্বপূর্ণ বিন্দুর সংযােগ করবে আর কোন কোন গুরুত্বপূর্ণ বিন্দু পরিহার করে যাবে। –

৩। সড়কটি যে স্থানের উপর দিয়ে যাবে সে স্থানে ভূ-সাংস্থানিক (Topography) অবস্থা।

8। সড়কটি যে স্থানের উপর দিয়ে যাবে ঐ এলাকার মাটির গুণগত মান।

৫। সড়কটি যে এলাকার উপর দিয়ে যাবে সে এলাকার সর্বোচ্চ বন্যা সীমা।

৬। সড়কটির (আদর্শ জ্যামিতিক ডিজাইনের জন্য) উপযুক্ততা।

৭।সড়কটির এলাকায় খাল, নদী, রেল লাইনের অবস্থান।

৮। পূর্বে নির্মিত সড়কের (যদি থাকে) রাইট অফ ওয়ে।

৯। সড়কটির এলাকায় গ্রাম ও শহরের অবস্থান।

১০। সড়ক নির্মাণ সামগ্রী ও শ্রমিক এর যােগান

১১। সড়ক এলাকায় মূল্যবান জমির অবস্থান

১২। যাত্রীদের নিরাপত্তা ও আরাম আয়েশ।

১৩। চিত্তাকর্ষক ও পর্যটন এলাকার অবস্থান।

১৪। শিল্প এলাকা ও খনিজ এলাকার অবস্থান।

১৫। সামরিক, রাজনৈতিক ও অন্যান্য বিষয়াদি।

১৬। কৃষি উৎপাদিত এলাকা, শিল্পের কাঁচামাল উৎপাদিত এলাকার অবস্থান।

১৭। এলাকার অন্যান্য সড়কের অবস্থান, দূরত্ব, মান ইত্যাদি।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

1 × 1 =