উচ্চ কর্মক্ষমতাসম্পন্ন কংক্রিট

0
358

উচ্চ কর্মক্ষমতাসম্পন্ন কংক্রিট এ নিন্মোক্ত গুনাগুন থাকে :

  • উচ্চ কার্যউপযোগীতা
  • উচ্চ শক্তি
  • সেগ্রিগেশন বা ছড়িয়ে পড়া ছাড়াই
  • দীর্ঘস্থায়ী টেকসই
  • দীর্ঘস্থায়ী মেকানিকাল গুনাগুন
  • অল্প সময়েই শক্তি অর্জন করে
  • তরল বা গ্যাস এর চলাচল.
  • হাইড্রেশন এর তাপমাত্রা
  • ঘনত্ব( Consistency)
  • টিকে থাকার ক্ষমতা.
  • অনুকুল পরিবেশ এ টেকশই
  • আয়তন ঠিক রাখা, বা আয়তনের খুব বেশি পরিবর্তন হয় না

প্রস্তুত প্রণালী-

    • সতর্কতার সাথে এর উপাদান ব্যবহার করে মিক্স ডিজাইন এর মাধ্যমে এই কংক্রিট তৈরি করা যাই
    • এখানে উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্য প্লাস্টিসাইজার ব্যবহার করা হয়। যার ফলে এতে ব্যবহুত পানি শুধুমাত্র হাইড্রেশনের কাজ করে
    • ২০- ২৫ শতাংশ ফ্লাই এ্যাস এবং বাকি ৭০ % সাধারণ পোর্টল্যান্ড সিমেন্ট ব্যবাহার করা হয়।
    • ফ্লাই এ্যস এবং সিলিকা গ্যাস সিমেন্ট এর সিমেন্ট এর মিনারেলত্ত্ব পরিবর্তন করে এবং ক্যালসিয়াম হাইড্রক্সাইড কমিয়ে ফেলে। ফ্লাই এ্যাস বল-বিয়ারিং হিসাবে কাজ করে এর কার্যউপযোগীতা বৃদ্ধি করে।
    • যেহেতা বরফ এলাকাতে এর ব্যবহার সমস্যা হয় তাই এতে এয়ার এনট্রেইন ব্যবহার করা হয়

    এই কংক্রিট এ নিন্মোক্ত গুনাগুন :

    • ১০,০০০ থেকে ১৫,০০০ পি.এস.আই শক্তি হয়ে থাকে।
    • পানির অনুপাতি ২৫ শতাংশে নামিয়া আনা যায়।

ধন্যবাদ এই পোস্টটি পড়ার জন্য। এই পোস্ট টি যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

five × two =