কংক্রিট সম্পর্কিত প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী

0
141
কংক্রিট: নির্দিষ্ট
অনুপাতে জমাট বাধাইকারী উপাদান(সিমেন্ট বা চুন),সরু দানার উপাদান(বালি),মোটা দানার
উপাদান (খোয়া)এবং পানি সহযোগে মিশ্রিত করে রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় জমাট বাধিয়ে কংক্রিট
প্রস্তুত করা হয়।
কংক্রিটের শ্রেণীবিভাগ:
কংক্রিট এক-প্রকার
কৃত্রিম পাথর। এটা কোর্স এগ্রিগেট, ফাইন এগ্রিগেট,বাইন্ডিং ম্যাটেরিয়ালস এবং পানির
সমন্বয়ে মিশ্রিত করে তৈরি করা হয়। কংক্রিট চার প্রকার যথা:

১. লাইম কংক্রিটঃ
খোয়া,চুন ও সুরকির সমন্বয়ে তৈরিকৃত কংক্রিট।
২. সিমেন্ট কংক্রিটঃ
খোয়া,সিমেন্ট ও বালির সংমিশ্রণে তৈরি।
৩. আর.সি.সিঃ
খোয়া, সিমেন্ট, বালি এবং রডের সমন্বয়ে প্রস্তুত।
৪. প্রিস্ট্রেসড
কংক্রিট

কংক্রিটের ব্যবহার:
সিমেন্ট মোটা
দানা উপাদান,সরু দানা উপাদান এবং পানির সংমিশ্রনে তৈরিকৃত কংক্রিটকে সিমেন্ট কংক্রিট
বা প্লেইন কংক্রিট বলে। এ জাতীয় কংক্রিটের চাপ সহ্য ক্ষমতা বেশি। তাই যেখানে কংক্রিটকে
বেশি চাপ সহ্য করতে হয়,সেখানে এটা ব্যবহার করা হয়। যেমন, বেড ব্লক, পুরু গ্রাভিটি ড্যাম
ইত্যাদি।
কংক্রিট যথেষ্ট
চাপ সহ্য করতে পারে কিন্তু শিয়ার এবং টানা বল সহ্য করার ক্ষেত্রে বেশ দুর্বল। কাঠামোর
যে সমস্ত মেম্বারকে টানা বল এবং শিয়ার সহ্য করতে হয় সে সমস্ত জায়গায় আর.সি.সি ব্যবহৃত
হয়। যেমন: বীম,স্ল্যাব ইত্যাদি।


কংক্রিটের উপাদানসমুহঃ

লাইম কংক্রিট:
খোয়া, চুন ও সুরকির এবং পনির সমন্বয়ে এ কংক্রিট প্রস্তুত করা হয়।চুনের রাসায়নিক নাম
হল ক্যালসিয়াম কার্বোনেট ।পাথুরে চুন পুড়িয়ে আমরা যে চুন পাই তাই হল কুইক লাইম বা ক্যালসিয়াম
অক্সাইড । এ চুন পানির সংস্পর্শে আসলে বাতাস হতে জলীয় বাষ্প টেনে নিয়ে ক্যালসিয়াম হাইড্রক্সাইড
এ পরিণত হয়। কেবল মাত্র জলছাদ করতে এ কংক্রিট ব্যবহার করা হয়।তবে বুনিয়াদ গাথুনীর নিচে,
যেখানে কাঠামোর লোড খুবই কম, সেখানে লাইম কংক্রিট ব্যবহার করা হয়।


সিমেন্ট কংক্রিট:
খোয়া, সিমেন্ট ও বালির সংমিশ্রণে তৈরি। সিমেন্টকে জমাট বাধাইদানকারী উপাদান হিসেবে
ব্যবহার করা হয় বলে একে সিমেন্ট কংক্রিট বলে। কংক্রিট তিনটি ধাপে শক্ত হয়।
যেমন: প্রথম জমাট
বাধা সময় 30-60 মিনিটের মধ্যে। দ্বিতীয় স্থিতিভবন প্রথম স্থিতিভবন থেকে প্রায় 10 ঘন্টা
পর্যন্ত হয়ে থাকে। তৃতীয় স্থিতিভবন –এ পর্যায়ে কংক্রিট দ্রুত শক্ত ও মজবুত হতে থাকে
এবং কংক্রিট শক্তি সঞ্চয় করতে থাকে। এ প্রক্রিয়া প্রায় এক মাস পর্যন্ত চলে।

 

 

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

18 − seventeen =