নির্মাণ কাজের প্রধান আইটেমসমুহ পর্ব-2

0
402

১.আরসিসি এর কাজ:

  • ভিত,কলাম,লিন্টেল,বীম,স্ল্যাব ইত্যাদিতে R.C.C ব্যবহৃত হয়।
  • দৈঘ্যxপ্রস্থxউচ্চতা হতে আরসিসি এর পরিমাণ নির্ণয় করা হয়।
  • R.C.C এর পরিমাণ ঘনমিটার এবং দরের একক ঘনমিটার।
  • R.C.C তে ব্যবহৃত রডের পরিমাণ এবং কংক্রিটের পরিমাণ আলদা দফায় হিসেব করা হয়।
  • রডের একক দর কেজি,কুইন্টাল অথবা মেট্রিক টন
  • কংক্রিট এর পরিমাণ বের করার সময় রডের পরিমাণ বাদ দেওয়া হয় না।
  • রডের পরিমাণ বিস্তারিত তথ্য দেওয়া না থাকলে রডের পরিমাণ কংক্রিট এর 0.6%-1% ধরা হয়।
  • লিন্টেল এবং স্ল্যাব এর পরিমাণ=0.7%-1%
  • বীম এ রডের পরিমাণ=1%-2%
  • কলামে এ রডের পরিমাণ=1%-5%
  • আরসিসি কলামের নুন্যতম কভারিং=5 সেমি
  • আরসিসি স্ল্যাবের নুন্যতম কভারিং=2 সেমি
  • আরসিসি বীমের নুন্যতম কভারিং=2.5 সেমি
  • মাটির নিচে আরসিসি কাঠামোর নূন্যতম কভারিং =7.5 সেমি
  • রডের একটি হুকের দৈর্ঘ্য সাধারণত রডের ব্যাসের 10 গুণ ধরা হয়।
  • টান এর ক্ষেত্রে ওভারল্যাপ রডের ব্যাসের 30 গুন এবং চাপ এর ক্ষেত্রে ওভারল্যাপ রডের
    ব্যসার্ধের ২৪ গুণ ধরা হয়।
  • রডের একক ওজন 7850 কেজি/ঘনমিটার
  • 7.5 সেমি এ কম পুরুত্বের আরসিসি কাজের হিসাব করা হয় বর্গমিটারে এবং দরের একক
    বর্গমিটার। যেমন: সানশেড,ড্রপওয়াল ইত্যাদি।

2.মেঝে এবং ছাদের কাজ:

  • মেঝেতে কংক্রিট কাজের উপড় Floor Finishing যথা: কৃত্রিম পাথর,মার্বেল বা মোজাইক এর কাজ
    হয়ে থাকে।
  • কংক্রিট এর পরিমাণ ঘনমিটারে এবং ফ্লোর ফিনিশ বর্গমিটারে হিসাব করা হয়।
  • কংক্রিট এর দরের একক ঘনমিটার এবং ফ্লোর ফিনিশের দরের একক বর্গমিটার।
  • সুপার স্ট্রাকচার দেয়ালের  ভিতর হতে ভিতরের মাপ
    লওয়া হয়।
  • ছাদের কংক্রিট এর পরিমাণ ঘনমিটার এবং দরের একক ঘনমিটার।
  • জলছাদের পরিমাণ বর্গমিটারে হিসাব করা হয় এবং দরের একক বর্গমিটার।
  • জলছাদের পুরুত্ব7.5-12 সেমি পর্যন্ত হয়ে থাকে। তবে সাধারণত 8 সেমি ধরা হয়।

৩.আস্তর বা প্লাস্টার এর কাজ:

  • দেওয়াল গায়ে বা মেঝেতে 10 মিমি হতে 15 মিমি পুরুত্ব আস্তর(plaster) করা হয়্।
  • সিলিং,সানশেড,বীমের তলায় এবং আরসিসি কজের ক্ষেত্রে 6 মিমি পুরু আস্তর করা হয়।
  • প্লাস্টারের পরিমাণ ও দরের একক বর্গমিটার।
  • বীম,পোষ্ট ইত্যাদির প্রান্তদেশের জন্য কোন মাপ বাদ দেওয়া হয় না।
  • 0.5 বর্গমিটার পর্যন্ত ফাকা অংশ বাদ দেওয়া হবে না এবং তাদের জ্যাম্ব,সীল এর জন্য কোন
    মাপ যোগ হবে না।
  • 0.5 বর্গমিটার হতে ৩ বর্গমিটার পর্যন্ত ফাকা অংশের উভয় পাশে আস্তর করা হলে এক পাশের
    মাপ বাদ দেওয়া হয় এবং জ্যাম্ব,সীল এর জন্য অপর পাশ ধরা হয়।
  • 3 বর্গমিটারের অধিক ফাকা অংশ সম্পূর্ণটাই বাদ দেওয়া হয় কিন্তু জ্যাম্ব,সীল যোগ
    করা  হয়।

৪.কাঠের কাজ:

  • দরজার চৌকাঠ সাধারণত ফ্লোর এর নিচে 4 সেমি প্রবেশ করানো হয়।
  • দরজা-জানালার চৌকাঠের পরিসীমাকে চৌকাঠের প্রস্থচ্ছেদের মাপ দ্বারা গুণ করে চৌকাঠের কাঠের পরিমাণ নির্ণয় করা হয়।
  • চৌকাঠের আকার সাধারণত 8 সেমি 10 সেমি।
  • চৌকাঠের পরিমান ঘনমিটারে হিসেব করা হয় এবং দরের একক ঘনমিটার।
  • দরজা-জানালার  পাল্লায় সাধারণত 4 সেমি পুরুত্বের কাঠ ব্যবহৃত হয়।
  • পাল্লাকে চৌকাঠের সাথে আটকিয়ে রাখার জন্য উভয় পাশের চৌকাঠের মধ্যে 1.5 সেমি প্রস্থের এবং পাল্লার
    পুরুত্বের সমান পুরু খাজ কাটা হয়্।
  • দরজার পাল্লা খোলার সুবিধার্থে দরজার নিচে 1.2 সেমি ফাক রাখা হয়।
  • দরজা-জানালার পাল্লার কাজের পরিমাণ বর্গমিটারে হিসাব করা হয় এবং দরের একক বর্গমিটার।
নির্মাণ কাজের প্রধান আইটেমসমুহ পর্ব-3

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

nineteen − eleven =